হেঁচকি বন্ধ করবেন কীভাবে?

হেঁচকি বন্ধ করবেন কীভাবে?

হেঁচকি শুরু হলে যদি বন্ধ না হয় তাহলে এর মতো অস্বস্তি আর কিছু নেই। একে তো হেঁচকির আওয়াজটা অন্যের অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়ায়, অপরদিকে যতক্ষণ না এটা বন্ধ হয় ততক্ষণ কোনো কিছুতেই শান্তি পাওয়া যায় না। হেঁচকি কী করে বন্ধ করবেন? চলুন হেঁচকি বন্ধ করার দুটো উপায় জেনে নিই।
—খুব হেঁচকি উঠছে। কিছুতেই বন্ধ হচ্ছে না। ভয় পাবেন না। কাগজ অথবা পলিথিনের ব্যাগ মুখের সামনে নিয়ে এসে ওর মধ্যে মুখটা ঢুকিয়ে নিঃশ্বাস নিন। এতে আপনার রক্তে কার্বন ডাই-অক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যাবে। রক্তে কার্বন ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ কমে গেলেই হেঁচকি ওঠা শুরু হয়। যখন ওর মধ্যে সমতা চলে আসবে তখন এমনিতেই আপনার হেঁচকি বন্ধ হয়ে যাবে।
— হেঁচকি বন্ধ করার আরেকটা পদ্ধতি আছে। খুব জোরে নিঃশ্বাস নিয়ে দশ সেকেন্ড পর্যন্ত দমটাকে বন্ধ করে রাখুন। এরপর নিঃশ্বাস না ছেড়েই আবার শ্বাস গ্রহণ করুন। এতে হেঁচকি বন্ধ হয়ে যাবে। কারণ নিঃশ্বাস না ছেড়ে শ্বাস গ্রহণের ফলে ফুসফুসে কার্বন ডাই-অক্সাইডের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। যার ফলে হেঁচকি উঠা বন্ধ হয়ে যাবে।

One Response to “হেঁচকি বন্ধ করবেন কীভাবে?”

  1. saurav সৌরভ Says:

    আপনার অসংখ্য ধন্যবাদ ! Ami to aj shokal theke হেঁচকির jonne pagol hoye geshlam ! osudh nilam kono kaaz hoilo na !
    tar por apnar ei blog post er opor nozor ailo ! Onek onek Donyobad!!
    -Saurav Chatterjee | সৌরভ চ্যাটার্জী


Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: