প্রোস্টেট ক্যান্সার

প্রোস্টেট ক্যান্সার নিয়ে অনেক গবেষণা হয়, লেখা জোখাও হয়। মাঝে মাঝে আশাপ্রদ ফলাফলও পাওয়া যায়। ইতিমধ্যে গত বছর একটি পরীক্ষামূলক ওষুধ আরিবাটেবোনের’ কথা শোনা গেলো, অপ্রসর ক্যান্সারেও কার্যকর হবে এমন ভরসার কথা। তবে ওষধুটি ব্যয়বহুল হবে, বলা বাহুল্য।
প্রোস্টেট ক্যান্সার স্ক্রিনিং ও নিরূপনী নিয়েও অশাব্যঞ্জক কথা বার্তা শোনা গেলো। বিলেতের ক্যাম্ব্রিজের ক্যান্সার গবেষকরা উদ্ভাবন করেছেন মূত্রের নমুনায় একটি সহজ পরীক্ষা যা থেকে বোঝা যাবে কোন পুরুষের প্রোস্টেট ক্যান্সার হবার সম্ভাবনা বেশি। অবশ্য টেস্টটি কত কার্যকর এনিয়ে বিস্তৃত জানা যায়নি এখনও।

গবেষকরা দেখিয়েছেন যে ইউরোপীয় ৩০-৪০% লোকের রয়েছে এমন জীন প্রজাতি যার জন্য এদের এই ক্যান্সারের ঝুকি বেশি। তরুণ বয়সেই মূত্রের নমুনা পরীক্ষা করে এই ঝুঁকি সম্বন্ধে জানা যায়। মূখ্য গবেষক ডা: হেইলি হুইটেকার বলেন এসব কথা। তবে এই ভেবিয়েট থাকলেই ক্যান্সার হবে, না থাকলে হবেনা, তাও নয়। তাই স্ক্রিনিং টেস্ট হিসাবে এর মূল্যবান প্রশ্ন সাপেক্ষ।

এখন রোগ নির্ণয়ের ব্যাপার। ক্যাম্ব্রিজ ইউকে গবেষকরা দেখছেন প্রোটিনে গঝগই নামে একটি প্রোটিন। তারা দেখেছেন, প্রোস্টেট ক্যান্সার যাদের, তাদের মূত্রে সেই প্রোটিন কম। ছোট একটি গবেষণায় তাঁরা মূত্রের নমুনা পরীক্ষা করে ৫০% নিভর্ূল নিরূপন করতে পেরেছেন, একে অত্যন্ত আশাপ্রদ অগ্রগতি মনে না হলেও বর্তমান নির্ণয় পদ্ধতির চেয়ে কম নিভূল তা বলা যাবেনা, বর্তমানের পদ্ধতি হলো পিএসএ টেস্ট, রক্তে পিএসএ প্রোটিনের মাত্রা নির্ণয়। এই টেস্টকে ৪ জনের মধ্যে একজনে সঠিকভাবে নিরূপন করা যায়, অর্থাৎ অনেককে অনাবশ্যক বায়োপসির ঝক্কি নিতে হয়। রক্তে পিএসএ এবং মূত্রে এমএসএমবি টেস্ট করে আরো সঠিক নিরূপনী সম্ভব।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: