কোন কাজে কত ক্যালরি ব্যয় হয়

দেহকে সঠিকভাবে চালনার জন্য খাদ্যশক্তির প্রয়োজন। খাদ্যশক্তিকে কিলোক্যালরিরুপে হিসাব করা হয়। সবার দেহে কিলোক্যালরির চাহিদা সমান নয়। হাল্কা কাজের লোকের চেয়ে ভারি কাজের লোকের খাদ্যের চাহিদা বেশি। এ ছাড়া বয়স, পেশা, আবহাওয়া, দিনরাত এবং লিঙ্গ ভেদে ক্যালরির চাহিদার তারতম্য ঘটে।দেখা গেছে, ৮ ঘণ্টা সাধারণ কাজের যেমন ওঠা-বসা, গোসল করা, কাপড় পরা ইত্যাদির জন্যে ঘণ্টায় ৪৫ কিলোক্যালরি হিসাবে ৩৬০ ক্যালরির প্রয়োজন। হাল্কা কাজের জন্যে

ঘণ্টায় ৭৫ ক্যালরি, মাঝারি কাজের জন্যে ৭৫-১০০ ক্যালরি এবং ভারি কাজের জন্যে ১৫০-৩৩০ ক্যালরির প্রয়োজন। শিশু, বালক-বালিকার স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্যে, রোগীর জন্যে ওজন ও বয়স অনুপাতে অপেক্ষাকৃত অধিক ক্যালরির প্রয়োজন। সারাদিন কী কাজে কত শক্তি খরচ হয় সে অনুপাতে খাদ্যশক্তি দেহ ইঞ্জিনে দিতে হয়।

নইলে শরীরের ওজন কমে যাবে এবং শরীর দুর্বল হয়ে পড়বে। তাহলে কোন কাজে কত শক্তি ব্যয় হয় তা ছক আকারে দেখি-

কাজের নাম ঘণ্টায় কত ক্যালরি ব্যয় হয়
বসা অবস্হায় ১৫ ক্যালরি
দাঁড়ানো অবস্হায় ২০ ক্যালরি
কাপড় ছাড়া ও পরা ৩৩ ক্যালরি
ঘর মোছা ও ঝাঁট দেয়া ১০০ ক্যালরি
ধীরে হাঁটা (আড়াই মাইল বেগে) ১৪০ ক্যালরি
দ্রুত হাঁটা (৪.৭৫ মাইলে বেগে) ২৪০ ক্যালরি
সিঁড়ি বেয়ে ওঠা ১০০০ ক্যালরি
সিঁড়ি দিয়ে নামা ৩৬৪ ক্যালরি
সাঁতার কাটা ৫০০ ক্যালরি
সাইকেল চালানো ১৪০ ক্যালরি
নাচ ২৪০ ক্যালরি
লেখা ২০ ক্যালরি
টাইপ করা ৭০ ক্যালরি
মুচির কাজ ১০০ ক্যালরি
হাল্কা ইঞ্জিনিয়ারিং ১৩০ ক্যালরি
ইলেকট্রিক কাজ ১৩০ ক্যালরি
ছুতোরের কাজ ১৪৯ ক্যালরি
রাজমিস্ত্রির কাজ ৩০০ ক্যালরি
কামারের কাজ ৩৫০ ক্যালরি
কাঠের কাজ ৩০০ ক্যালরি
খনি মজুরের কাজ ৩২০ ক্যালরি

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: