আদার ঔষধি গুণ

আদার ঔষধি গুণ


মসলা থেকে শুরু করে ঔষধি উপাদান হিসেবে আদার ব্যবহার হচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। যারা গলার চর্চা করেন তারা অনেকেই গলা পরিষ্কার রাখার জন্য আদা আর লবণকে পছন্দ করে থাকেন। আসলে মসলা ছাড়াও আদার রয়েছে বিভিন্ন গুণ। ইউনিভার্সিটি অব নিয়ামি মেডিক্যাল স্কুলের বিজ্ঞানীদের মতে, খাদ্যের সাথে নিয়মিত আদা খেলে গিঁটে ব্যথা সারে অনেকখানি। শীতে কাঁপুনি ধরে যাচ্ছে? এক কাপ আদার চা খেয়ে নিন। বেশ আরাম বোধ করবেন। আদা সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেমকে উত্তেজিত করে রক্ত পরিসঞ্চালন বৃদ্ধি করে, সেই সাথে রক্তনালী প্রসারিত করে। ফলে শরীর গরম থাকে দীর্ঘক্ষণ।

এ ছাড়া যাদের মোশন সিকনেস আছে তারা সব সময় আদার সাহায্য নিয়ে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

আঙুলের গিঁট ফোটানো ভালো নয়

ঘুম থেকে বিছানা ছাড়ার আগে কিংবা ক্লান্তিকর পরিস্খিতিতে সচরাচর যে কাজটি আমরা করে থাকি, সেটি হলো হাত-পায়ের আঙুল টেনে অথবা আঙুলের গিঁটে চাপ দিয়ে ঠুসঠাস আওয়াজ সৃষ্টি। এতে করে কতটুকু ক্লান্তি দূর হয় কে জানে! তবে আঙুলের ক্ষতি হয়। আঙুল ধরে টানাটানি বা চাপ প্রয়োগের ফলে আঙুলের মাংসপেশিতে টান পড়ে এবং লিগামেন্টগুলো ঢিলা হয়ে যায়। ফলে আঙুলের কর্মক্ষমতা হন্সাস পায়। সবচেয়ে বড় ক্ষতি হলো কখনো কখনো এর ফলে আর্থ্রাইটিস হতে পারে।

এসি গাড়ির জানালা

মাঝে মধ্যে খুলে দিন

দূরপাল্লায় রওনা হয়েছেন, ঘন্টার পর ঘন্টা আপনার গাড়িতে এসি চলছে। মিনিট দশেকের জন্য এসি বìধ করে দিন এবং জানালার কাচগুলো নামিয়ে গাড়িতে মুক্ত বাতাস চলাচল করতে দিন। এতে করে লাভ হলো দীর্ঘ সময় এসি চলার ফলে এসি সিস্টেমের মধ্যে যে স্পোর ও ফাঙ্গাস জন্মানোর আশঙ্কা থাকে তা অনেকখানি কমে যায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: